দা’বানলে জ্বলছে অস্ট্রেলিয়া। কোনোভাবেই এই প্রাকৃতিক দুর্যোগ সামলাতে পারছে না দেশটির সরকার। সবাই প্রার্থনা করছে যেন আকাশ ভে'ঙে বৃষ্টি নামে।

দুই মাসের বেশি ধ’রে চলা ভ’য়াবহ দা’বানলে প্রায় ৫০ কোটি বন্যপ্রা’ণী মা’রা গেছে। আর নি’হত হয়েছেন প্রায় ৩০ জন মানুষ। দা’বানল এখনো বেড়েই চলেছে। ইতিমধ্যেই দেশটির ৬ রাজ্যের ৪ টিই দা’বানলের কবলে প’ড়েছে।

সবচেয়ে বি’পদে আছে বনের বাসিন্দা পশুরা। চারদিক থেকে এমনভাবে আ’গুন তাদের এমনভাবে ঘিরে ধ’রছে যে, পালানোর সুযোগটাও পাচ্ছে না! অসংখ্য প্রা’ণী কোনোমতে পালিয়ে জনবসতিতে চলে এসেছে।
অস্ট্রেলিয়ার মানুষজন এই দূ’র্গত প্রা’ণীদের আশ্রয় দিয়েছে। তাদের চিকিৎ’সা এবং খাবারের ব্যব’স্থাও করে দিচ্ছে মানুষ। সেই ভ’য়ার্ত পশুগুলো মানুষ দেখলেই এখন জড়িয়ে ধ’রছে! বোবা মুখে ভাষা ফোটে না, কিন্তু কাতর আর্তিতে চাইছে সাহায্য।

দগ্ধ-অর্ধদগ্ধ প্রা’ণীগুলোর ছবি-ভিডিও ছ’ড়িয়ে প’ড়েছে বিশ্ব মিডিয়া। যেই দেখছে, তার চোখ বেয়ে নেমে আ’সছে জলের ধারা। নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যে ৩৬ লাখ হেক্টর জমি পুড়ে গেছে যা ইউরোপের দেশ বেলজিয়ামের থেকেও বড়। কুইন্সল্যান্ডে ২ লাখ ৫০ হাজার হেক্টর জমি পুড়ে গেছে।

এছাড়া ভিক্টোরিয়া অ’ঙ্গরাজ্যে ৮ লাখ ২০ হাজার হেক্টর বনাঞ্চল পুড়ে গেছে। এই ভ’য়াবহ দা’বানল মো’কাবেলায় সর্বশ’ক্তি নিয়োগ করেছে অস্ট্রেলিয়ার সরকার। তবুও থামছে না আ’গুনের ভ’য়াবহতা।