আপনি যত দামি ফোনই ব্যবহার করেননা কেন তা কখনও কখনও স্লো হতেই পারে। এটা অনেক সময় বির’ক্তের কারন হয়ে উঠে। যার ফলে প্রয়োজনীয় কাজ ক’রতে বেশ স’মস্যার সম্মু’খীন হতে হয় তাদের। তবে কয়েকটি কাজ ফোনের পুরনো গতিকে আবারও বাড়িয়ে তোলে। আসুন জে’নে নিই এই স’মস্যা থেকে মু’ক্তি পাওয়ার কিছু উপায়।

১. অপ্রয়োজনীয় অ্যাপসগু’লি আনইন্সটল: ফোনের ইন্টারনাল স্টোরেজ ভর্তি হয়ে গেলে, ফোন স্লো হয়ে যায়। সেইজন্য অপ্রয়োজনীয় অ্যাপসগু’লি আনইন্সটল ক’রতে হবে। শুধু তাই নয় হোয়াটসঅ্যাপে আগত মেসেজ/ফাইল ডিলিট করলেও স্টোরেজ খালি হয়।

২. প্রযু’ক্তি স’স্পর্কিত তথ্য অনুযায়ী, চারমাস পরপর ফোন রিসেট করা প্রয়োজন। বিভিন্ন অ্যাপের ক্যাশে ক্লিয়ার করলে সেটিংসের স্টোরেজ অপশনে গিয়ে পুরানো ডেটা ডিলিট করাও যেতে পারে।

৩. সাধারণ এসডি কার্ড ব্যবহার না করে, ফাস্ট এসডি কার্ড ব্যবহার করা উচিত। এছাড়া ইন্টারনাল স্টোরেজ থেকে ফটো বা ভিডিও গুগলে সরিয়ে রাখতে পারেন।

৪. হোম স্ক্রিনে থাকা অপ্রয়োজনীয় ডিটেইলস সরালে ফোনের গতি দ্রুত হয়।

৫. সেটিংসে গিয়ে অ্যানিমেশন অফ বোতাম প্রেস করলেও ফোনের গতি বৃ’দ্ধি পায়।

৬. ফোন স্লো হয়ে গেলে ফোনকে একবার রিস্টার্ট করা দেখা অবশ্যই দরকার। এর ফলে অ্যান্ড্রয়েড সিস্টেমে টেম্পোরারি ফাইলগু’লি ডিলিট হওয়ার সাথে সাথে ফোনের মেমোরিও ক্লিন হয় যার দ্বারা গতি বাড়ে।