সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃ’ত্যুর পর স্বজনপোষণের অ’ভিযোগ নিয়ে তোলপাড় বলিউড। কঙ্গনা রানাউত থেকে সনু নিগম কিংবা অভ’য় দেওল, একর পর এক অভিনেতা কিংবা গায়ক মুখ খুলতে শুরু ক’রেছেন মুম্বই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির বেশ কয়েকজন বড় মাথার বি'রুদ্ধে। স্বজনপোষণের অ’ভিযোগ নিয়ে যখন বি টাউন জুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে, সেই সময় মুখ খু’ললেন অভিষেক বচ্চন।

মেগাস্টার অমিতাভ বচ্চনের ছেলে হয়েও কীভাবে তাঁকে বলিউডের একের পর এক পরিচালক, প্রযোজক ফিরিয়ে দিয়েছেন, তা নিয়ে মুখ খু’লে ন জুনিয়র বচ্চন। তিনি জা’নান, ১৯৯৮ সালে ব'ন্ধু রাকেশ ওম প্র’কাশ মেহরা স’ঙ্গে তিনি একস’ঙ্গে বলিউডে পা রাখবেন বলে মনোস্থির করেন। রাকেশের পরিচালিত সমঝোতা এক্সপ্রেস দিয়েই বলিউডে অভিষেকের সফর শুরু হবে বলে স্থির করেন। কিন্তু রাকেশ এবং তাঁর ছবির দায়িত্ব কোনও প্রযোজক নিতে চাননি। তাঁদের ফিরিয়ে দেন একাধিক পরিচালকও।

এরপর বিগ বি-র স’ঙ্গে দেখা ক’রতে এসে জে পি দত্তের মু’খোমুখি হন অভিষেক বচ্চন। সেখানেই তাঁর লুক দেখে পছন্দ হয়ে যায় জে পি দত্তের। আখরি মুঘল নামে একটি ছবির জন্য জে পি দত্ত নতুন মুখের সন্ধানে ছিলেন। ফলে আখরি মুঘল-এর জন্য পছন্দ হয়ে তাঁকে।

যদিও আখরি মুঘল তৈরি করেননি জে পি দত্ত। তাঁর পরিবর্তে তৈরি হয় রিফিউজি। ২০০০ সালে জেপি দত্তের হাত ধ’রেই বলিউডে পা রাখেন অভিষেক বচ্চন এবং করিনা কাপুর খান। এরপর দিল্লি সিক্স-এ প্রথম ব'ন্ধু রাকেশ ওমপ্র’কাশ মেহরার স’ঙ্গে জুটি বেঁধে কাজ করেন অভিষেক বচ্চন।

অর্থাত বলিউডের ভাট, খান, কাপুর, জোহর ক্যাম্পের বি'রুদ্ধে যখন অ’ভিযোগ উঠছে একের পর এক করে, সেই সময় বিগ বি-র ছেলে হয়েও তাঁকে কীভাবে একের পর এক পরিচালক, প্রযোজক ফিরিয়ে দেন, সেই তথ্য সামনে এনে স্বজনপোষণের অ’ভিযোগকে কিছুটা ব্যাকফুটে ফে’লে দিলেন অভিষেক বচ্চন, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু ক’রেছেন অনেকেই।