করো'না ভা'ইরাসের এই দুর্যোগে যে যার সাধ্যমত সাহায্য করছেন অস’হায়দের। কেননা ক’র্মক্ষেত্র ব'ন্ধ হওয়ায় না খেয়ে ম’রার উপক্রম নিম্ন আয়ের মানুষদের। সামাজিক দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে বড় অংকের সাহায্য করছেন প্রতিষ্ঠিত খেলোয়াড়রাও।

ভারতের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমান ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি সৌরভ গাঙ্গু’লি ৫০ লাখ রুপির চাল কিনে দিয়েছেন গরিব অস’হায়দের জন্য। সে দেশের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান শচিন টেন্ডুলকারও আজ (শুক্রবার) ৫০ লাখ রুপি দান ক’রেছেন।

সাহায্যের হাত বাড়িয়েছেন মহেন্দ্র সিং ধোনিও। তবে এমন দুর্যোগে বিশ্বের অন্যতম ধনী এই ক্রিকেটার দিয়েছেন মাত্র ১ লাখ রুপি, গণমাধ্যমে এমন খবর প্র’কাশ হওয়ার পর ক্ষোভে ফেটে প’ড়েন ভক্ত-সমর্থকরা।

ধোনির সম্পদের পরিমাণ প্রায় ১১১ মিলিয়ন ডলার, ভারতীয় মুদ্রায় যা ৮০০ কোটি রুপির ওপরে। এত সম্পদের মালিক একজন ক্রিকেটার কি করে মাত্র ১ লাখ টাকা দান করেন? সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ধোনিকে নিয়ে তাই আলোচনা-স’মালোচনা আর ব্যঙ্গ বিদ্রুপ অন্য মাত্রা পেয়েছে।

চারদিকে এত কোলাহল, কানে গেছে ধোনির স্ত্রী সাক্ষী ধোনিরও। এসব শুনে উল্টো খেপলেন তিনি। দা’বি করলেন, মূলত সাংবাদিকরাই ভুল খবর ছাপিয়ে তার স্বামীর সুনাম ন’ষ্ট ক’রেছেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে গণমাধ্যমক’র্মী দের দায়ী করে সাক্ষী ধোনি টুইট ক’রেছেন, ‘আমি সব মিডিয়া হাউসকে অনুরো’ধ করব এমন স্প’র্শকাতর প’রিস্থিতিতে তারা যেন ভুয়া খবর ছ’ড়িয়ে না দেন। আপনাদের লজ্জা করে না! আমা’র অ’বাক লাগে, দায়িত্বশীল সাংবাদিকতা কি বিলীন হয়ে গেল!’

তাহলে ধোনি কত রুপি দান করলেন? সাক্ষী ধোনি কিন্তু সেটা আর খো’লাসা করেননি। শুধু সাংবাদিকদের ওপর ক্ষোভ উগড়ে দিয়েই দায় সেরেছেন।