কনকনে ঠা’ন্ডার মধ্যেই বসন্ত এসেছিল ভারতীয় শ’ক্তিমান অভিনেতা দীপঙ্কর দে এবং অভিনেত্রী দোলন রায়ের সংসারে। গত ১৬ জানুয়ারি এক শীতের রাতে অনেকটা অ’গোচরেই সাত পাকে বাঁ’ধা প’ড়েছিলেন এ জু’টি। তারপর সামাজিক যোগাযোগ মা’ধ্যমে সে কী ট্রো’ল…! তাতে অব’শ্য কেয়ার ক’রেননি তারা।

আজ ভালোবাসা দিবসে তাই ভ্যালেনটাইন্স ডে’র প্ল্যান জা’নালেন ২২ বছর লিভ ইন স’ম্পর্কে থাকা দীপঙ্কর ও দোলন। হাজার হোক বিয়ের পর প্রথম ভ্যালেন্টাইন্স ডে বলে কথা!

তা কী সেই প্ল্যান? প্রশ্ন শু’নেই খি’লখিলিয়ে উ’ঠলেন দোলন। যেন সদ্য প্রেমে পড়া কোনও অষ্টাদশী। হাঁ’সতে হাঁ’সতেই বল্লেন, “আরে সে এক কাণ্ড! বুধবার কতগুলো গোলাপ কিনে এনে’ছিলাম। অ’ল্প দাম পড়ল (হাসি)। আর বৃহস্পতিবার তো এমনিতেই সাঁই বাবার দিন।

আমি আবার সাঁই বাবার ভ’ক্ত। কাল তাকে গোলাপ দিয়েছিলাম। আজ সকালে সেই গোলাপই দীপঙ্করকে দিয়ে বললাম, এই নাও, ভ্যালেন্টাইন্স ডে গিফট। সাঁ’ইবাবার প্রসাদ হিসেবেও নিতে পারো…”— বলেই এক চোট হা’সলেন অভিনেত্রী।

এদিকে, বউয়ের এই কী’র্তি দেখে দীপঙ্কর কি আর হাসি চেপে রা’খতে পারেন? সাঁইবাবাকে দেয়া গোলাপ দিয়ে ভ্যালেন্টাইন্স গিফট! এ-ও সম্ভ’ব?

জা’না গেল, আ’লোচিত এই জু’টি প্ল্যান ক’রেছিলেন অনেক কিছুই। ভে’বেছিলেন স’ন্ধেবেলার দিকে একসঙ্গে কোথাও খে’তে যাবেন, একটু লং ড্রাইভ, হাইওয়ের ধারে চা…কিন্তু বাধ সা’ধল শু’টিং। আজ সারাদিন অফ-ই নিয়েছিলেন দো’লন। কিন্তু বেলা ১২টার সময় জা’নতে পারলেন, যে’তেই হবে শু’টিংয়ে। কী আর করা? পে’শাদারিত্বের খাতিরে অগ’ত্যা ভ্যালেন্টাইন্স প্ল্যান বাদ।

আর দীপঙ্কর? দোলন ব’ললেন, “ওর জন্য খাবার অ’র্ডার করে দি’য়েছি। ব’লেছি, মনে করো আমি আর তুমি বাইরে কোথাও খেতে গি’য়েছি…।” ব্যস হয়ে গেল। লে হালুয়া। এ যে রীতিমত ফাঁ’কি! সূত্র- আনন্দবাজার।