বাংলাদেশ প্র’কৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদকে পি’টিয়ে হ ত্যার ঘ’টনায় বুয়েট শিক্ষা’র্থী মোয়াজ আবু হুরায়রাকে (২০) গ্রে’ফতার করেছে মহানগর গো’য়েন্দা পু’লিশ। শনিবার বেলা ১১টায় উত্তরার ১৪ নম্বর সে’ক্টর এলাকা থেকে তাকে গ্রে’ফতার করা হয়। গ্রে’ফতারকৃ’ত মোয়াজে'র নাম আবরার হ ত্যা মা’মলার এজা’হারে ছিল।

ঢাকা মে’ট্রোপলিটন পু’লিশের (ডিএমপি) মিডিয়া ও পাবলিক রিলেস’ন্স বিভাগ মোয়াজ আবু হুরায়রাকে গ্রে’ফতারের বিষয়টি নি’শ্চিত করেছে।

ডিএমপি জা’নায়, গ্রে’ফতারকৃত মোয়াজ বুয়েটের ইইই বিভাগের ১৭তম ব্যাচের ছাত্র। তার বাড়ি কিশোরগ’ঞ্জে'র কুলিয়ারচরের ওসমানপুরের পিরপুর গ্রামে। মোয়াজে'র বাবার নাম মাশরুর-উজ-জামান। এ নিয়ে আবরার হ ত্যায় গ্রে’ফতারের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৯ জনে। আবরার ফাহাদকে পি’টিয়ে হ ত্যার ঘ’টনায় তিনি জ’ড়িত ছিলেন বলে প্রাথমিক তদ’ন্তে জা’না গেছে।

উ’ল্লেখ্য, আবরার ফাহাদকে গত ৬ অক্টোবর রাতে বুয়েটের শেরে বাংলা হলের নিজ ক’ক্ষ থেকে ডে’কে নিয়ে যায় বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের নে’তাক’র্মীরা। এরপর হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে নিয়ে গিয়ে নি’র্মম নি’র্যাতন করে পি’টিয়ে হ ত্যা করে ছাত্রলীগের নেতাক’র্মীরা। পরে রাত তিনটার দিকে হলের নিচতলা ও দুইতলার সিঁড়ির করিডোর থেকে আবরারের লা’শ উ’দ্ধার করে পু’লিশ। এ হ ত্যার ঘ’টনায় আবরারের বাবা বা’দী হয়ে ১৯ জনকে আ’সামি করে চকবাজার থা’নায় একটি মা’মলা দা’য়ের করেন।

সূত্র: নয়াদিগন্ত